বৃহস্পতিবার, ২৮শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১২ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২২শে রবিউল আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরি
বৃহস্পতিবার, ২৮শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

উন্নয়নের ধারা বজায় রাখতে জিতুকে নৌকার প্রার্থী হিসেবে চায় চরসেন্সাসবাসী

উন্নয়নের ধারা বজায় রাখতে জিতুকে নৌকার প্রার্থী হিসেবে চায় চরসেন্সাসবাসী
জিতু মিয়া বেপারী। ফাইল ফটো।

উন্নয়নের ধারা বজায় রাখতে আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চরসেন্সাস ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান জিতু মিয়া বেপারীকে নৌকা প্রতিকের প্রার্থী করার দাবী করেছে ইউনিয়নবাসী। তাদের দাবী শরীয়তপুর জেলার পূর্ব প্রবেশ দোয়ার এ ইউনিয়নের উন্নয়ন অগ্রযাত্রা বজায় রাখার জন্য মুজিব আদর্শের পরীক্ষিত সৈনিক জিতু মিয়া বেপারী। তিনি নড়িয়া সখিপুরের উন্নয়নের যাদুকর বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্নেহধন্য বাংলাদেশ সরকারের পানি সম্পদ উপমন্ত্রী একেএম এনামুল হক শামীম এমপি’র আস্থাভাজন। জিতু মিয়া বিগত ৫ বছরে ইউনিয়নের অভূত পূর্ব উন্নয়ন সাধন করেছেন বলে স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দ মনে করেন।
তাদের মতে এখানে নৌকার বিজয় সুনিশ্চিত করার জন্য জিতু মিয়ার বিকল্প নেই। চরসেন্সাস ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক মোঃ মফিজুল হক মাদবর বলেন, চরসেন্সাস ইউনিয়নটি মূলত আওয়ামীলীগের উর্বর ভূমি ছিলনা। এখানে এনামুল হক শামীম ভাই এমপি ও মন্ত্রী হওয়ার পরে আমাদের সাংগঠনিক সহ ভৌত অবকাঠামো ও যোগাযোগের উন্নয়ন কাজ দিয়ে এখানে বঙ্গবন্ধুর আদর্শের বীজ বপন করে সুফল পেয়েছেন। সাধারণ মানুষ বিএনপি’র দুশাসন ও তাদের অপরাজনীতি ত্যাগ করে আমাদের উন্নয়নের অগ্রযাত্রায় শামীল হচ্ছে। এ ধারা বজায় রাখার জন্য জিতু মিয়ার মত পরীক্ষিত মুজিব সৈনিক কে আমরা আবারো চেয়ারম্যান হিসেবে পেতে চাই।
শরীয়তপুর জেলা জাতীয় শ্রমিক লীগের আহবায়ক কমিটির যুগ্ম আহবায়ক প্রবীণ রাজনীতিক শাহাদাৎ হোসেন সরদার বলেন, আমরা বিশ্বাস করি শামীম ভাইয়ের উন্নয়ন কাজ অব্যাহত রাখার জন্য এবং চরসেন্সাস ইউনিয়নে নৌকার বিজয় সুনিশ্চিত করার জন্য জিতু মিয়ার বিকল্প নেই।
চরসেন্সাস ইউনিয়ন মহিলা আওয়ামীলীগ সভাপতি ও সংরক্ষিত মহিলা মেম্বার জায়েদা বেগম বলেন, আমরা জিতু মিয়া বেপারীর সাথে কাজ করতে গিয়ে দেখেছি তিনি বিচারের টাকা খায়না। রিলিপ নিয়ে তালবাহানা করেনা। তিনি জনগণের ও ইউনিয়নের উন্নয়নের জন্য নিবেদিত প্রাণ। আগামী নির্বাচনে আমরা তাকে নৌকার প্রার্থী হিসেবে আবারো চেয়ারম্যান দেখতে চাই।
এ ব্যাপারে চরসেন্সাস ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ও সখিপুর থানা আওয়ামীলীগ সহ-সভাপতি জিতু মিয়া বেপারী বলেন, আমি উপরে আল্লাহর রহমতে আমার নেতা উপমন্ত্রী শামীম ভাইয়ের নির্দেশ ব্যতিত মনোনয়ন তো দূরের কথা কোন সিদ্ধান্তই নিবনা। তিনি যদি মনে করেন চরসেন্সাসের উন্নয়নের জন্য আমাকে প্রার্থী করবে তার জন্য আমি প্রস্তুত আছি। আর যদি তিনি অন্য চিন্তা করেন তাহলে সে সিদ্ধান্তও আমি মাথা পেতে নিব ইনশাআল্লাহ।
আমি মুজিব আর্দশে বিশ্বাসী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কর্মী ও শামীম ভাইয়ের নির্দেশে রাজনীতি করি। আমার বড় ভাই মরহুম বাচ্চু বেপারী সহ আমার পরিবারের প্রতিটি সদস্য আওয়ামীলীগের জন্য নিবেদিত। তাই আমি বিশ্বাস করি শামীম ভাইয়ের বাহিরে আমাদের কোন ঠিকানা বা পরিচয় নেই। তিনি যা করেন সেটাই হবে আমাদের মঙ্গলের জন্য।

সংবাদটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

মন্তব্য

দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


error: দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।