শুক্রবার, ২৯শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৩ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৩শে রবিউল আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরি
শুক্রবার, ২৯শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

শরীয়তপুরে মা ইলিশ শিকারের সময় বজ্রপাতে তিন জেলের মৃত্যু

শরীয়তপুরে মা ইলিশ শিকারের সময় বজ্রপাতে তিন জেলের মৃত্যু
মা ইলিশ শিকারের সময় বজ্রপাতে নিহত জেলেদের পরিবারে আহাজারি। ছবি-দৈনিক হুংকার।

ভেদরগঞ্জের উপজেলার পদ্মা নদীতে মা ইলিশ শিকার করতে গিয়ে বজ্রপাতে তিন জেলের মৃত্যু হয়েছে। ওই ঘটনায় একজন জেলে আহত হয়েছেন।
১০ অক্টোবর রোববার ভোর ৫ টার দিকে উপজেলার উত্তর তারাবুনিয়া ইউনিয়নের মাঝের চর এলাকায় পদ্মা নদীতে এ দুর্ঘটনাটি ঘটে।
নিহতরা হলেন- ভেদরগঞ্জ উপজেলার সখিপুর থানার উত্তর তারাবনিয়া ইউনিয়নের রশিদ দেওয়ান কান্দি গ্রামের কাশেম পাঠানের ছেলে মহিউদ্দিন (২৬), দেওয়ান কান্দি গ্রামের হাকিম দেওয়ানের ছেলে আল আমিন (৩৬) ও চাঁদপুর জেলার হাইমচর ইউনিয়নের চর ভৈরবের নয়ন আহমেদ (২৭)। আর আহত সাগর প্রধানিয়া (২৫) উত্তর তারাবনিয়া ইউনিয়নের মরন আলী ঢালী কান্দি গ্রামের আলী আহমেদ প্রধানিয়ার ছেলে। তাকে উদ্ধার করে ভেদরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, সরকারি নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ভেদরগঞ্জ উপজেলার মাঝের চরে পদ্মা নদীতে মা ইলিশ শিকার করছিলেন জেলেরা। সেখানে আল আমীন, মহিউদ্দিন, নয়ন আহম্মেদ, সাগর প্রধানিয়াসহ সাত জেলে একটি নৌকায় মাছ শিকার করছিলেন। রোববার ভোর ৫টার দিকে হঠাৎ বজ্রপাত শুরু হয়। তাদের বহনকারি নৌকার ওপর একটি বজ্র আঘাত হানে। তাতে তিনজন ঘটনাস্থলে প্রাণ হারান। আর একজন দগ্ধ হয়ে আহত হন। নৌকায় থাকা বাকি তিনজন নদীতে ঝাপিয়ে রক্ষা পায়।

উত্তর তারাবুনিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. ইউনুস সরকার বলেন, বজ্রপাতে তিন জেলে নিহত ও একজন আহত হয়েছেন। নিহতদের পারিবারিক ভাবে দাফন করা হয়েছে। আর আহত জেলেকে উদ্ধার করে স্থানীয় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। তারা নদীতে ইলিশ শিকার করছিলেন।
ভেদরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) তানভীর আল নাসিফ বলেন, পদ্মা নদীতে জেলেরা মা ইলিশ শিকার করছিলেন। ভোর রাতের দিকে হঠাৎ বজ্রপাত হয়। একটি নৌকার ওপর আঘাত হানে। ঘটনাস্থলেই তিনজন প্রাণ হারিয়েছে। ওই জেলেদের পরিবারের কাছে মরদেহ হস্তান্তর করা হয়েছে। আর আহত জেলের চিকিৎসা চলছে। আমরা পরিবার গুলোকে সহায়তা করার চেষ্টা করব।

সংবাদটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

মন্তব্য

দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


error: দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।