মঙ্গলবার, ২১শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৬ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৪ই সফর, ১৪৪৩ হিজরি
মঙ্গলবার, ২১শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

আজ থেকে পরীক্ষা মূলক ফেরী চলাচল শুরু হতে পারে

আজ থেকে পরীক্ষা মূলক ফেরী চলাচল শুরু হতে পারে
আজ থেকে পরীক্ষা মূলক ফেরী চলাচল শুরু হতে পারে

সাত্তার মাদবর, মঙ্গল মাঝি-শিমুলিয়া নৌপথে পানির গভীরতা এখন ১০ থেকে ১২ ফুট। এই তথ্য জানিয়েছে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআইডব্লিউটিএ) খনন বিভাগ। আর পানির এই গভীরতা থাকলে ফেরি চলাচল সম্ভব বলে মত দিয়েছে সংস্থাটির নৌ সংরক্ষণ ও পরিচালনা বিভাগ।
জানতে চাইলে বিআইডব্লিউটিএর খনন বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী এনামুল হক মুঠোফোনে বলেন, পদ্মা সেতুর ৩৭ নম্বর পিলার থেকে ৪১ নম্বর পিলার পর্যন্ত নৌ চ্যানেলে খননের কথা ছিল। রোববার ৩৭-৩৮ নম্বর পিলারের মাঝামাঝি স্থানে খনন শুরু করা হয়। কিন্তু তীব্র স্রোতের কারণে ড্রেজার স্থির রাখা যাচ্ছিল না। ৩০-৪০ মিনিট পর ড্রেজার সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। ওই চ্যানেলের একটি স্থানে পলি পড়ে গভীরতা কমে গিয়েছিল। পরে পলি সরে গিয়ে সেখানে ১০-১২ ফুট গভীরতা ফিরেছে। বিআইডব্লিউটিসি চাইলে এই গভীরতায় ফেরি চালাতে পারে।
বিআইডব্লিউটিএ ও বিআইডব্লিউটিসি সূত্র জানায়, পদ্মায় স্রোত বৃদ্ধি পাওয়ায় বেশ কিছুদিন ধরে মাদারীপুরের বাংলাবাজার ও মুন্সিগঞ্জের শিমুলিয়া নৌপথে ফেরি চলাচলে সমস্যা হচ্ছিল। এর মধ্যে গত দুই মাসে চার দফায় পদ্মা সেতুর পিয়ারে ফেরির ধাক্কা লাগে। ফলে বাংলাবাজার-শিমুলিয়া নৌপথে ১৮ আগস্ট থেকে ফেরি চলাচল বন্ধ রয়েছে।
বাংলাবাজার-শিমুলিয়া নৌপথে ১৪ দিন ধরে ফেরি চলাচল বন্ধ থাকায় মানুষ বিপাকে পড়েছে। এ অবস্থায় জরুরি সেবা নিশ্চিত করতে শরীয়তপুরের জাজিরার সাত্তার মাদবর, মঙ্গল মাঝির ঘাট এলাকায় নতুন ফেরিঘাট নির্মাণ করে বিআইডব্লিউটিএ। পরে সেখানে রো রো ফেরির নতুন একটি পন্টুন বসানো হয়।
এই নৌপথের জাজিরার নাওডোবা পদ্মা সেতুর চ্যানেল ধরে ভাটিতে ফেরিগুলো চলাচল করার কথা। এতে ফেরিগুলো পদ্মা সেতুর পিলার থেকে ৩০০ থেকে ৫০০ মিটার দূরত্ব বজায় রেখে চলাচল করতে পারবে। পাশাপাশি নৌ-পথের দূরত্ব দুই কিলোমিটার কমবে; বাঁচবে সময়।
গত শুক্রবার থেকে সাত্তার মাদবর, মঙ্গল মাঝি-শিমুলিয়া নৌপথে ফেরি চলাচল শুরুর কথা ছিল। কিন্তু নাব্যতাসংকট থাকায় ফেরি চলাচল শুরু করা যায়নি। নতুন ঘাট হয়ে ছোট ব্যক্তিগত গাড়ি, অ্যাম্বুলেন্স, সরকারি দপ্তরের জরুরি গাড়ি পারাপার হবে। এ জন্য চলাচল করবে তিন-চারটি কে টাইপের ফেরি।
জানতে চাইলে বিআইডব্লিউটিসির বাণিজ্য বিভাগের পরিচালক আশিকুজ্জামান বলেন, সবকিছু অনুকূলে থাকলে পরীক্ষামূলকভাবে ফেরি চালানো হবে। এরপর পুরোপুরি ফেরি চলাচলের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

মন্তব্য

দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


error: দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।