বৃহস্পতিবার, ১৩ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৩০শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১লা শাওয়াল, ১৪৪২ হিজরি
বৃহস্পতিবার, ১৩ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

গৃহবধূকে শ্বাসরোধে হত্যা, ভন্ড পীরসহ গ্রেফতার ৩

গৃহবধূকে শ্বাসরোধে হত্যা, ভন্ড পীরসহ গ্রেফতার ৩
গৃহবধূকে শ্বাসরোধে হত্যা, ভন্ড পীরসহ গ্রেফতার ৩

ভন্ড পীরের আস্তানায় মুক্তা মালা (৩২) নামে এক গৃহবধূকে শ্বাসরোধ করে হত্যা অভিযোগে ভন্ড পীরসহ তিনজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গত রোববার রাতে চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলার এরশাদপুর গ্রাম থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।
গ্রেফতারকৃতরা হলেন, ওই গ্রামের সালাউদ্দিন ওরফে পান্টু হুজুর, গৃহবধূর স্বামী জহুরুল ইসলাম, শ্বাশুড়ি জহুরা বেগম। এ ঘটনায় রাতে নিহত গৃহবধূ মুক্তা মালার বাবা মামলা করেন। মামলার এজাহার সুত্রে জানা গেছে, মেহেরপুর গাংনী উপজেলার বাথানপাড়া গ্রামের বাসিন্দা আব্দুর রশিদ দীর্ঘদিন ধরে অসুস্থ ছিলেন। লোকমুখে আলমডাঙ্গার এরশাদপুর গ্রামের পান্টু হুজুরের কথা শুনে মেয়ে মুক্তা মালাকে নিয়ে চিকিৎসা নিতে সেখানে যান। এক পর্যায়ে পান্টু হুজুরের খাদেম এরশাদপুর গ্রামের জহুরুল ইসলামের সাথে মুক্তা মালার প্রেমের সম্পর্ক তৈরী হয়। গত ৬-৭ মাস আগে তারা বিয়েও করেন। মুক্তা মালা স্বামীর সাথে পান্টু হুজুরের আস্তানায় থাকতেন। বিয়ের পর থেকে জহুরুল ইসলামের মা জহুরা বেগম পুত্রবধূ মক্তা মালাকে মেনে নিতে পারেননি। তিনি মুক্তা মালাকে নানা ভাবে অত্যাচার করতেন। তার ব্যাপারে ছেলে জহুরুল ও পান্টু হুজুরকে সব সময় ফুঁসলাতেন।
রোববার সকালে মুক্তা মালাকে শ্বাসরোধে হত্যার পর গলায় ওড়না পেঁচিয়ে পান্টু হুজুরের ঘরের আড়ার সাথে ঝুলিয়ে রাখে তারা। কয়েক ঘন্টাপর মরদেহ দরবারের নিজস্ব ভ্যানে করে মুক্তা মালার বাবার বাড়িতে পাঠিয়ে দেয় এবং ঘটনাটি কাউকে না জানাতে হুমকিও দেয়া হয়। দুপুরে মরদেহ নিয়ে আলমডাঙ্গা থানায় হাজির হন নিহতের বাবা আব্দুর রশিদ। পরে রাত ১০টার দিকে চারজনকে আসামি করে মামলা করেন তিনি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

মন্তব্য

দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।