বৃহস্পতিবার, ২৮শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১২ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২২শে রবিউল আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরি
বৃহস্পতিবার, ২৮শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

৪৮ দিন পর বাংলাবাজার-শিমুলিয়া ঘাটে পরীক্ষামূলক ফেরি চালু

৪৮ দিন পর বাংলাবাজার-শিমুলিয়া ঘাটে পরীক্ষামূলক ফেরি চালু
বাংলাবাজার ঘাট থেকে শিমুলিয়ার উদ্দেশ্যে ছেড়ে যাওয়া ফেরি। ছবি-দৈনিক হুংকার।

৪ অক্টোবর সোমবার বাংলাবাজার থেকে ১টি এবং শিমুলিয়া থেকে ১টি মোট দুটি ফেরি পরীক্ষামূলকভাবে চলাচল শুরু করেছে। পরীক্ষামূলক ফেরি চলাচলে কোনো ধরণের সমস্যা পাওয়া না গেলে, আগামীকাল থেকে পুরোদমে ফেরি চলাচলের সম্ভাবনা আছে। বিআইডব্লিউটিসি’র পরিচালক আশিকুজ্জামান ফেরি চলাচলের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
আশিকুজ্জামান বলেন, ‘সকাল সাড়ে ১০টার দিকে পরীক্ষামূলক চলাচলের অংশ হিসেবে একটি ফেরি ঘাট ছেড়ে গেছে।’
নৌ-সংরক্ষণ ও পরিচালনা বিভাগের সহকারী পরিচালক ওবায়দুল করিম খান জানান, গত বুধবার ও বৃহস্পতিবার শিবচরের বাংলাবাজার ও মুন্সিগঞ্জের শিমুলিয়া নদীপথে বিআইডব্লিউটিসি, বিআইডব্লিউটিএ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান সিইজিআইএসের একটি বিশেষজ্ঞ দল সার্ভে করেছে। এ সময় তারা নদীতে স্রোতের গতিবেগ কম দেখতে পান। এই নৌপথে পদ্মা নদীতে প্রতি ঘণ্টায় পানির সর্বনিম্ন স্রোতের গতি আছে ২ দশমিক ৫৯ নটিক্যাল মাইল এবং সর্বোচ্চ গতি আছে ৩ দশমিক ৯৬ নটিক্যাল মাইল। স্রোতের গতি ২ দশমিক ৫০ নটিক্যাল মাইল হলেই ফেরি চলতে পারে।
তিনি আরও জানান, শিমুলিয়া ঘাট থেকে বাংলাবাজার আসার সময় ফেরি পদ্মা সেতুর ১৩, ১৪ ও ১৫ নং পিলারের ভেতর দিয়ে চলবে এবং বাংলাবাজার থেকে শিমুলিয়া আসার পথে ১৯, ২০ ও ২১ নং পিলারের ভেতর দিয়ে চলবে।
উল্লেখ্য, এ বছর বর্ষা মৌসুমে পদ্মায় পানি ও স্রোত বৃদ্ধি পেলে বাংলাবাজার ঘাট থেকে শিমুলিয়া ঘাটে ফেরি চলাচলের সময় জুলাই-আগস্ট মাসে সেতুর পিলারে কয়েক দফা ধাক্কা লাগে। এরপর নদীতে স্রোতের তীব্রতা বাড়লে ১৮ আগস্ট থেকে এই নৌপথে ফেরি চালানো বন্ধ রাখা হয়।
জরুরী সেবার জন্য এ্যাম্বুলেন্স, ছোট গাড়ি, সরকারি দপ্তরের জরুরী গাড়ি পারাপারে শরীয়তপুরের জাজিরার সাত্তার মাদবর-মঙ্গলমাঝির ঘাটে ২৫ আগস্ট নতুন একটি ফেরিঘাট স্থাপন করা হয় এবং নারায়ণগঞ্জ থেকে একটি পন্টুন আনা হয়। কিন্তু নাব্যতা সংকটে ওই ঘাটটি চালু করা যায়নি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

মন্তব্য

দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


error: দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।